সস্তায় যেসব বিমানে ভ্রমন করা যায়

Jun 05, 2018 01:43 pm
বিশ্বের সবচেয়ে সস্তায় বিমানে চড়ার সুযোগ রয়েছে

 

মেলবোর্নের একটি ট্রাভেল প্ল্যানিং সাইট 'রোমটুরিও' সারা বিশ্বের বিমান সংস্থাগুলির ভাড়া সংক্রান্ত একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। তাতেই দেখা যাচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে সস্তায় বিমানে চড়ার সুযোগ রয়েছে।এরমধ্যে মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ার বিমান রয়েছে।  'রোমটুরিও'-র তালিকা অনুযায়ী বিশ্বের সবচেয়ে সস্তা প্রথম দশটি বিমান সংস্থার তালিকা দেয়া হলো। কম খরচে বিমান ভ্রমনের একটি চিত্র এখানে পাওয়া যাবে।

এয়ারএশিয়া এক্স :

মালয়েশিয়ার এয়ারএশিয়া এক্স বিশ্বের সবচেয়ে সস্তা বিমান সংস্থার স্বীকৃতি পেয়েছে। এটি এয়ার এশিয়ারই একটি সিস্টার কোম্পানি। এয়ারএশিয়া এক্স এই তালিকার শীর্ষে থাকায় বিশ্বের সস্তা বিমান সংস্থাগুলির শীর্ষস্থানে এশিয়ার দখল পাকা হয়েছে। সস্তা এয়ারলাইন্স-এর শীর্ষের তিনটি প্রতিষ্ঠানই এশিয়ায়।

এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস :

ভারতের এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস পৃথিবীর দ্বিতীয় সাশ্রয়ী এয়ারলাইন। এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস, এয়ার ইন্ডিয়া-রই সহায়ক সংস্থা। কোচিতে এর সদর দফতর। প্রতি সপ্তাহে প্রায় ৫৫০ টি ফ্লাইট চালায় সংস্থাটি। মোট ২৯টি গন্তব্যে যাওয়া যায় এই সংস্থার বিমানে। তার মধ্যে অবশ্য এশিয়া এবং মধ্যপ্রাচ্যের জায়গাই বেশি। 'রোমটুরিও'-র রিপোর্টে বলে হয়েছে ইউরোপের দেশগুলির মধ্যে ভ্রমণ করলে বিমান বাদে অন্য উপায়ের কথা বিবেচনা করা উচিত। কারণ উড়োজাহাজ ব্যয়বহুলও বটে আর এতে সময়ও বেশই লাগবে।

ইন্দোনেশিয়া এয়ার :

এশিয়া বিশ্বের তৃতীয় সস্তাতম বিমান সংস্থা ইন্দোনেশিয়ার এই এয়ারলাইনটি। তবে রিপোর্ট বলছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা আটলান্টিকের ওপাড়ে কম খরচে ফ্লাইটে ভ্রমণের জন্য, ওয়াও এয়ার, নরওয়েইয়ান এয়ার বা ভার্জিন আটলান্টিক সংস্থার কথাই বিবেচনা করা উচিত।

প্রিমিয়ার এয়ার :

আইসল্যান্ডের আরো একটি বিমান সংস্থা রয়েছে এই তালিকায়। প্রিমিয়ার এয়ার - বিশ্বের চতুর্থ সস্তাতম বিমান সংস্থা। ওয়াও এয়ার এবং রায়ানএয়ারের সঙ্গে মিলিতভাবে প্রিমিয়ার এয়ার মধ্যপ্রাচ্য এবং এশিয় এয়ারলাইন্সগুলিকে কঠিন প্রতিযোগিতার মধ্যে ফেলেছ। তবে, ইউরোপে ভ্রমণের জন্য সবচেয়ে ভাল বিমান সংস্থার সন্ধান তো আগেই দেওয়া হয়েছে।

ইন্ডিগো এয়ারলাইন্স :

ভারতের এই বিমান সংস্থাটিকে ঘিরে নানা বিতর্ক থাকলেও ইন্ডিগো সারা বিশ্বব্যাপী অনেক যাত্রীরই সাশ্রয়ের জন্য প্রথম পছন্দ। তালিকার পঞ্চম স্থানে আছে সংস্থাটি।

ইতিহাদ এয়ারওয়েজ :

সংযুক্ত আরব আমিরশাহির দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানসংস্থাটি রয়েছে তালিকার ছয় নম্বরে। 'রোমটুরিও'-র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে 'এশিয়া ও তার আশেপাশে ভ্রমণ এই বিমান সংস্থার জন্য আগের তুলনায় আরো বেশি সাশ্রয়ী হয়েছে'।

রায়ানএয়ার আইরিশ :

কম খরচের বিমান সংস্থা রায়ানএয়ার রয়েছে সপ্তম স্থানে। ২০১৪ সালে বিশ্বের অন্যান্য সব সংস্থার তুলনায় বেশই যাত্রী পরিবহনের কৃতিত্ব ছিল তাদের। রায়ানএয়ার ইউরোপের ভ্রমণের জন্য 'বেস্ট ভ্যালু এয়ারলাইন' বলে দাবি 'রোমটুরিও'-র। পাশাপাশি গোটা ইউরোপই এর রুট ছড়ানো রয়েছে।

কান্তাস :

তালিকার অষ্টম স্থানে রয়েছে আরেকটি অস্ট্রেলিয় বিমান সংস্থা কান্তাস। বিশ্বের তৃতীয় প্রাচীনতম বিমান সংস্থা এটি। বিমানের সংখ্যার নিরিখে এটি অস্ট্রেলিয়ার বৃহত্তম বিমান সংস্থাও বটে। 'রোমটুরিও'-র পরামর্শ সস্তা ভাড়া পেতে প্রতিষ্ঠিত ক্যারিয়ারগুলি ছেড়ে নতুন বা চার্টার্ড এয়ারলাইনগুলি বিবেচনা করা উচিত।

ওয়াও এয়ার :

আইসল্যান্ডের কম দামের এই ক্যারিয়ারটি তালিকার নবম স্থানে আছে। এ মাসের শুরুতেই চালু হয়েছে ওয়াও এয়ার। ডিসেম্বর থেকে দিল্লি থেকে সরাসরি ফ্লাইটে রিকজাবিক যাওয়া যাবে।

ভার্জিন অস্ট্রেলিয়া :

তালিকায় দশম স্থানে রয়েছে অস্ট্রেলিয় বিমান সংস্থা ভার্জিন অস্ট্রেলিয়া। তবে 'রোমটুরিও'-র রিপোর্ট বলছে, কোনও একটি বিমান সংস্থার প্রতি অনুগত হওয়ার কোনও মানে নেই। এখন সারা বছর বিভিন্ন সংস্থা বিভিন্ন রকম ছাড় দেয়। সেদিকে নজর রাখুন।