নাক ডাকার কারনে যে ৮ টি জটিল সমস্যা দেখা দেয়

Nov 05, 2017 03:16 pm
 নাক ডাকা আমাদের কাছে যেনো স্বাভাবিক বিষয়

 

 নাক ডাকা আমাদের কাছে যেনো স্বাভাবিক বিষয়। সব পরিবারেই ঘুমের মধ্যে নাক ডাকা লোকের সংখ্যা নেহাত কম নয়। বয়স্করা তো বটেই এমনকী কমবয়সীদের মধ্যেও নাক ডাকার প্রবণতা লক্ষ্য করা যায় আজকাল। পাশে শুয়ে থাকা ব্যক্তি যদি ঘুমের ঘোরে নাক ডাকে তাতে অসুবিধা হওয়া স্বাভাবিক। তবে জানেন কি অতিরিক্ত নাক ডাকার ফল মারাত্মক হতে পারে।

সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, প্রতি দশজনে ২ জন ব্যক্তি ঘুমের মধ্যে জোরে নাক ডাকার সমস্যা রয়েছে। বহু মারাত্মক রোগের বা শারীরিক সমস্যার অন্যতম লক্ষণ এই নাক ডাকা। আমরা জেনে নেই নাক ডাকা স্বাস্থ্যের জন্য কতটা ক্ষতিকর।


১.স্মৃতি দুর্বলতা : অনেকদিন ধরে নাক ডাকার সমস্যা থাকলে এবং তার জন্য চিকিৎসক না দেখালে মনে রাখার ক্ষমতা ধীরে ধীরে অনেক কমে যায়।

২. মাথা ব্যথা : নিদ্রাহীনতার ফলে সকালে মাথা ব্যথার সমস্যা হয়। নাক ডাকা এই সমস্য়াকে আরও বাড়িয়ে তোলে।


৩.সঙ্গীকে বিরক্ত করা : নাক ডাকা বিবাহিত জীবনকেও নানাভাবে সমস্যায় ফেলতে পারে। আপনার সঙ্গী এটিকে ভালোভাবে নাও নিতে পারেন। প্রতিদিনের ব্যাপারে দাঁড়িয়ে গেলে বিরক্তি আসা স্বাভাবিক।


৪.স্ট্রোক : জানেন কি, নাক ডাকা ও স্ট্রোকের মধ্যে সম্পর্ক রয়েছে। ধমনীর মধ্যে রক্ত জমাট বেঁধে থাকলে স্ট্রোক হয়। নাক ডাকারও উৎসও ওই একই জায়গা থেকে।


৫.হার্টের স্বাস্থ্য: নিদ্রাহীনতা ও নাক ডাকা হার্টের স্বাস্থ্য়ের জন্যও অত্যন্ত খারাপ। তাই দেরি না করে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।


৬.অবসাদ: নিদ্রাহীনতা ও নাক ডাকার সমস্যা মানসিক অবসাদ ডেকে আনে।


৭. দুর্ঘটনার প্রবণতা : সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, অনিদ্রায় ও নাক ডাকার সমস্যায় ভোগা ব্যক্তিরা গাড়ি চালালে বেশি করে দুর্ঘটনার কবলে পড়েন।


৮.যৌন সম্পর্ক : নাক ডাকার সমস্যায় ভোগা ব্যক্তিরা বেশিক্ষণ যৌন সম্পর্ক স্থাপন করতে পারেন না। খুব তাড়াতাড়ি উত্তেজনা হারিয়ে ফেলেন তারা।