স্বপ্ন মনে রাখতে পারি না কেন?

May 11, 2017 10:00 am
 সুন্দর ঘুমের পর সকালে

 

 সুন্দর ঘুমের পর সকালে যখন আমাদের ঘুম ভাঙে তখন কজনের রাতের দেখা স্বপ্ন মনে থাকে? পরিসংখ্যান বলছে এই সংখ্যাটা খুবই কম। কিন্তু কেন আমরা স্বপ্ন মনে রাখতে পারি না? সেই উত্তর খোঁজা যাক। ঘুম আসার পর পরই আমরা আর এই পৃথিবীতে থাকি না। পাড়ি জমায় দূর কোনও দেশে। যেখানে চারিদিক হয় খুব সুন্দর, নয়তো খুব ভয়ঙ্কর। এই দ্বিতীয় দুনিয়ায় প্রবেশের ছাড়পত্র আমরা পাই কোথা থেকে? এই আজব জগতের সন্ধান রয়েছে কি আমাদের মনের মধ্যে, নাকি এই সবই আমাদের মস্তিষ্কের খেলা? এমন হাজারো প্রশ্ন ভির করে আসে প্রতিদিন সকালে।

স্বপ্ন দেখার সময় আমাদের চোখ অনবরত নরতে থাকে: আমরা যখন গভীর ঘুমে থাকি, তখন অনবরত আমাদের চোখ নরতে থাকে। এই সময়ই আমরা মূলত স্বপ্ন দেখে। প্রসঙ্গত, এমন চোখের মুভমেন্টকে "আর ই এম" বলে।

বেশিরভাগ স্বপ্ন আমরা এই সময় দেখি আমরা: প্রথমদিকে বেশিরভাগ বিশেষজ্ঞই এমনটা মনে করেছিলেন যে আমরা যখন গভীর ঘুমে থাকি, তখনই স্বপ্ন দেখি। কিন্তু পরবর্তিকালে এই ধরণা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। তাহলে কখন আমরা স্বপ্ন দেখি? একাধিক কেস স্টাডি করে একথা প্রামণিত হয়েছে যে, ঘুমনোর সময় কোনও বিশেষ মুহূর্তে নয়, বরং যে কোনও স্টেজেই আমরা স্বপ্ন দেখতে পারি।

স্বপ্নের এক আজব দুনিয়া! সেই কোন যুগ থেকে বিজ্ঞানিরা এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজে চলছেন যে আমরা রাতে দেখা স্বপ্ন কেন সকালে ভুলে যাই। কিন্তু দুঃখের বিষয় কী জানেন, আজ পর্যন্ত এই প্রশ্নের কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি। আগামী দিনে পাওয়া যাবে কিনা তাও নিশ্চিত নয়।

এমনও বিশ্বাস আছে... কিছু বিজ্ঞানি মনে করেন আমার যখন খুব সমস্যার মধ্যে থাকি তখন আমাদের মস্তিষ্ক কোনও এক আজানা প্রক্রিয়ায় সেইসব সমস্যার সমাধান খুঁজতে থাকে। আর তখনই আমরা স্বপ্ন দেখি। যদিও আরেক দলের মতে স্বপ্ন আর কিছুই নয়, শরীরের একটি প্রক্রিয়া মাত্র। কোন যুক্তিটা ঠিক, আর কোনটা ভুল, জানা নেই। তবে একথা ঠিক যে আমরা সবাই স্বপ্ন দেখি। এমনটা কারও সঙ্গে ঘটেনা, এই দাবী কেউই করতে পারবে না।


আমরা কতক্ষণ ঘুমাচ্ছি তার উপর নাকি সব নির্ভর করে? আমাদের ঘুম কেমন হচ্ছে, তার উপর নির্ভর করে আমরা স্বপ্ন মনে রাখতে পারবো কিনা। আসলে স্বপ্ন দেখতে দেখতে আমাদের বেশিরভাগেরই ঘুম ভেঙে যায় অথবা ঘুমের গভীরতা অতটা থাকে না। তাই তো স্বপ্নের কিছুটা মনে থাকে আমাদের, পুরোটা নয়। প্রসঙ্গত, এই মতটি বেশিরভাগই মেনে নিয়েছেন ঠিকই। কিন্তু এই যুক্তির সপক্ষে তেমনভাবে কোনও প্রমাণ আজ পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।